Header Ads

চিঠি ফাঁস! সৌদি বাদশাহ ফয়সাল চেয়েছিলেন ইসরাইল মিশর ও সিরিয়া আক্রমণ করুক, চিত্র সহ প্রমাণ



দিরিলিস রিসার্চ উইং |


জায়নবাদীদের সাথে  আলে সৌদ বংশের সম্পর্ক ও ভালোবাসা বহুদিনের। আমরা যদি গভীর ভাবে ইতিহাস ও রাজনৈতিক অঙ্গন পর্যবেক্ষণ করে দেখি , তাহলে এটি আমাদের সম্মুখে প্রকাশ হয়ে পড়ে। সাম্প্রতিক সৌদি আরব কর্তৃক ফিলিস্তিনের বিরোধ ও ইসরাইলের সম্পর্ক প্রকাশ‍্য।

সাম্প্রতিক আমাদের উসমানী পরিবারের গবেষণাকেন্দ্র  দিরিলিস রিসার্চ উইং এর গবেষণা একটি নতুন তথ‍্য উন্মোচিত করেছে। সৌদি আরবের অন‍্যতম বিখ্যাত রাজা কিং ফয়সাল বিন আব্দুল আজিজ (১৯৬৪-৭৫) ইয়েমেন-মিশর যুদ্ধ চলাকালীন মিশরকে দমন করতে তিনি চেয়েছিলেন ইসরাইল যাতে মিশর ও সিরিয়া দখল করে।

চিঠিটি ১৯৬৬ সালের ২৭ ডিসেম্বর কিং ফয়সাল আমেরিকার রাষ্ট্রপতি জনসনকে পাঠান। এ সময় সৌদি আরব ইয়েমেনে শীয়া রাজবংশ রক্ষা করতে মিশরের বিরুদ্ধে যুদ্ধ করছিল।  এসময় মিশরের গদীতে ছিলেন জামাল আব্দুন নাসিরের মতো কট্টর ইসরাইল বিরোধী যিনি সিরিয়ার সাথে মিলে একেবারে ইওম কিপ্পুরের দিন ইসরাইল আক্রমন করেন।

তো ইয়েমেনকে রক্ষা করতে কিং ফয়সাল তাঁর চিঠিতে আমেরিকাকে এই প্রস্তাব দেন যে, ইসরাইলকে দিয়ে মিশর ও সিরিয়া দখল করতে হবে। এই চিঠিতে তিনি ইরাকে মুসলিম বিশ্বের অপর ক্ষত কুর্দিস্তান স্থাপনের প্রস্তাব দেন।

 এই চিঠিটি ইসরাইলের জেরুজালেম পোস্ট, মিমো সহ বিভিন্ন বিখ্যাত আরবী পত্র পত্রিকায় ও ছাপা হয়। এই চিঠিকে সৌদি অস্বীকার করে নি। এই চিঠির বিষয়ে তদানীন্তন ইয়েমেন শাসক সালেহ একে ' খতীরাহ ' হিসেবে বর্ণনা করেছেন। সম্ভবতঃ তিনি হলেন  এই চিঠির ফাঁসকারী। আশ্চর্য জনক ভাবে   এক সপ্তাহের মধ‍্যে তাঁর অবস্থা গাদ্দাফির মতো হয়।

যাইহোক, আমরা পাঠক মহলের জন্য কিং ফয়সাল বিন আব্দুল আজিজ আল সৌদ কর্তৃক আমেরিকার রাষ্ট্রপতি জনসনকে পাঠানো এই চিঠির চিত্র নীচে তুলে ধরলামঃ

                         







চিন্তা প্রয়োজনীয় অংশের অনুবাদ দেখতে নীচের লিঙ্কে ক্লিক করুন ঃঃ

https://adonis49.wordpress.com/2013/12/05/arabs-date-of-infamy-december-271966-official-letter-of-saudi-monarch-faisal-to-us-president-johnson/


No comments

Theme images by PLAINVIEW. Powered by Blogger.