সাইপ্রাস জয়ে পশ্চিমাদের এক বাহু বিচ্ছিন্ন করেছি : এরদোগান

তুরস্কের প্রেসিডেন্ট রজব তাইয়েব এরদোগান বলেছেন, সাইপ্রাস জয়ের মাধ্যমে আমরা পশ্চিমাদের এক বাহু বিচ্ছিন্ন করে তাদের প্রতারণার জবাব দিয়েছিলাম। বুধবার তুর্কি পার্লামেন্টে দেয়া ভাষণে এরদোগান এ কথা বলেন।
পশ্চিমা শক্তিকে প্রতারণাপূর্ণ ও কপটাচারী বলে মন্তব্য করেন এরদোগান। তিনি বলেন, ‘পশ্চিমা শক্তি প্রতারণায় পরিপূর্ণ এবং নিষেধাজ্ঞা আরোপের মাধ্যমে তারা ক্রমাগত তুরস্কের ওপর নানা প্রতিবন্ধকতা সৃষ্টি করছে এবং তুরস্কের বিরুদ্ধে বারবার তারা ভুল পদপে নিচ্ছে। তিনি আশা প্রকাশ করে বলেন, ‘তবে এই সমস্যাগুলো তুরস্ক অবশ্যই কাটিয়ে উঠতে সম হবে।’
লিপানতো বা নফপাকটাস যুদ্ধের দুই বছর পরে ১৫৭৩ সালে ভেনিসের রাষ্ট্রদূতের কাছে লেখা সুকুলো মোহম্মদ পাশার চিঠির এক বাণী উদ্ধৃতি করে এরদোগান বলেন, ‘লিপানতোকে পরাজিত করার মাধ্যমে আমাদের নৌবাহিনী সাইপ্রাস জয় করেছিল। সাইপ্রাস জয়ের মাধ্যমে আমরা পশ্চিমাদের এক বাহু বিচ্ছিন্ন করেছিলাম। পান্তরে তারা কেবল আমাদের একটি লোম কাটতে পেরেছিল।’ তিনি আরো বলেন, ‘যাই হোক, পশ্চিমারা জানে যে, একটি বাহু একবার কাটা হলে তা আর প্রতিস্থাপন করা যাবে না; কিন্তু লোম যত বেশি কাটা হবে তা তত বেশি ঘন হবে।’
নফপাকটাস বা লিপানতোর যুদ্ধ পশ্চিম গ্রিস শহরের ভেনিসীয় নাম ছিল। ১৫৭১ সালের ৭ অক্টোবর এই যুদ্ধ সংঘটিত হয়। ভেনিস সাম্রাজ্য ও স্প্যানিশ সাম্রাজ্যের নৌবহর ওসমানি সালতানাতের নৌবহরের কাছে শোচনীয় পরাজয় বরণ করে। পার্লামেন্টে দেয়া ভাষণে এরদোগান তুরস্কের সব রাজ্য থেকে সন্ত্রাসবাদী ফতহুল্লাহ সংগঠনের (ফেটো) সদস্যদের যাবতীয় প্রতিষ্ঠান নিমূলের অঙ্গীকার করেন।
তিনি বলেন, ‘আইনের সীমার মধ্য থেকে মতাসীন একে পার্টি প্রয়োজনীয় সব কিছুই করবে। এতে আমরা পিছ পা হবো না।’ এরদোগান বলেন, ‘আমরা তাদের রাষ্ট্রীয় ষড়যন্ত্রের প্রক্রিয়া মুছে ফেলব, আমরা এটি পুরোপুরি নির্মূল করব। তাদেরকে নিষ্ক্রিয় করে দেয়া ছাড়া আমাদের রাষ্ট্র ভালোভাবে কাজ করবে না।’

No comments

Theme images by PLAINVIEW. Powered by Blogger.